অভিমানে ফুটবলকেই বিদায় জানালেন জিয়েখ

[ad_1]

আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে অবসর গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন চেলসির মরোক্কান তারকা মিডফিল্ডার হাকিম জিয়েখ। জাতীয় দলের কোচের সঙ্গে রাগ করেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ইংলিশ ক্লাব চেলসির হয়ে মাঠ মাতানো এই তারকা।

চলতি মৌসুমে সব মিলিয়ে ২৫টি ম্যাচে মাঠে নেমেছেন জিয়েখ। করেছেন ৬টি গোল এবং ৪টি অ্যাসিস্টও। নিশ্চিত ভাবেই জায়গা পেতে পারতেন মরক্কোর আফ্রিকান নেশন্স কাপের দলে। তার উপস্থিতি নিশ্চিত ভাবেই দলের শক্তি বাড়াত এবং মরক্কোকে শিরোপার জন্য ফেবারিট করে তুলত।

কিন্তু কোচ হালিহোডজিকের কাছে নিয়মিত ভাবেই ব্রাত্য হয়ে আসছিলেন তিনি। তাই রাগ করে মরক্কোর জাতীয় দল থেকে অবসরই নিয়ে নিলেন তিনি।

মরক্কোর কোচের অভিযোগও রয়েছে জিয়েখের উপর। গত বছর ঘানার বিপক্ষে একটি প্রীতি ম্যাচ খেলেছিল মরক্কো। সেই ম্যাচের আগে ইনজুরির দোহাই দিয়ে খেলেননি জিয়েখ। কোচের অভিযোগ ওই ইনজুরি ছিল পুরো নাটক। তারপর থেকেই তিনি বাদ দিয়ে রেখেছেন জিয়েখকে।

জিয়েখের অবসরের ঘোষণা নিশ্চিত ভাবেই দলটির সমর্থকদের জন্য বড় ধাক্কা। তাকে মনে করা হত মরক্কোর সবচেয়ে বড় তারকা। তবে ভক্তদের কাছে ক্ষমাও চেয়েছেন জিয়েখ।

তিনি বলেন, “অবশ্যই ভক্তরা খুশি নয়। আমি তাদের বুঝতে পারি। কিন্তু আমি আর জাতীয় দলে ফিরব না। আমি এখন আমার ক্লাবের প্রতি মনোযোগী। আমি ভক্তদের বুঝতে পারি, তাদের জন্য আমি দুঃখিত।”



[ad_2]
Source link