পরিবেশ কাকে বলে

মাটি, পানি, বাতাস, গাছপালা, প্রাণী, আকাশ ইত্যাদি সবই আমাদের পরিবেশ। কিন্তু পরিবেশের তিনটি প্রধান উপাদান রয়েছে। সেগুলো হলো- মাটি, পানি ও বাতাস। মাস্টন বেটস পরিবেশ সম্পর্কে বলেন, পরিবেশ হল বাহ্যিক অবস্থার সমষ্টি যা জীবনের বৃদ্ধি ও বিকাশকে প্রভাবিত করে।

পরিবেশ কাকে বলে: আমাদের চারপাশে গাছপালা, পশুপাখি, জীবজন্তু, মানুষ, ঘরবাড়ি, মাটি, পানি, বায়ু, সূর্যের আলো, পাহাড়-পর্বত, আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধব এই সবকিছু মিলেই আমাদের পরিবেশ।

অন্যভাবে, আমাদের চারপাশে যা কিছু আছে তাই নিয়ে আমাদের পরিবেশ।

অন্যভাবে, মানুষ বা অন্যান্য জীব যে পারিপার্শ্বিকতার মধ্যে বসবাস করে জীবনযাত্রা নির্বাহ করে, তাকে পরিবেশ বলে।

অন্যভাবে, পরিবেশ সম্পর্কে মাসটন বেটস বলেছেন, পরিবেশ হলো সেসব বাহ্যিক অবস্থার সমষ্টি যা জীবনের বৃদ্ধি ও সমৃদ্ধিকে প্রভাবিত করে ।

অন্যভাবে, মনোবিজ্ঞানী বোরিং, লংফিল্ড এবং ওয়েল্ড এর মতে, জিন ব্যতীত যা কিছু ব্যক্তির উপর প্রভাব ফেলে , তাই হলো পরিবেশ।

পরিবেশের প্রধান তিনটি উপাদান রয়েছে। সেগুলো হলো- মাটি,পানি ও বায়ু।

উপাদান অনুযায়ী পরিবেশকে ২ ভাগে ভাগ করা হয়েছে,

যথাঃ 

  1. প্রাকৃতিক পরিবেশ
  2. মানুষের তৈরি পরিবেশ

১. প্রাকৃতিক পরিবেশঃ
আমাদের চারপাশে প্রকৃতির সব উপাদান নিয়েই প্রাকৃতিক পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। যেমন: গাছপালা, পশুপাখি, সূর্যের আলো, মাটি, পানি, বায়ু ইত্যাদি। প্রাকৃতিক পরিবেশের উপাদান ছাড়া মানুষ বাঁচতে পারবে না, মানুষ বাঁচার জন্য প্রাকৃতিক পরিবেশের উপর নির্ভরশীল।

প্রাকৃতিক পরিবেশের উপাদান হলো: গাছপালা, সূর্যের আলো, মাটি, পানি, বায়ু, সমুদ্র, পাহাড়, নদী, ফুল ইত্যাদি।

২. মানুষের তৈরি পরিবেশঃ
মানুষের তৈরি সকল উপাদান নিয়ে মানুষের তৈরি পরিবেশ সৃষ্টি হয়। যেমন: ঘরবাড়ি, আসবাবপত্র, কাপড়-চোপড়, রাস্তা-ঘাট, বাস, ট্রেন, নৌকা ইত্যাদি, এসকল উপাদান নিয়েই গড়ে উঠেছে মানুষের তৈরি পরিবেশ।

মানুষের তৈরি উপাদান হলো: ঘরবাড়ি, রাস্তাঘাট, চেয়ার, টেবিল, আসবাবপত্র, কাপড়-চোপড়, বিদ্যালয়, যানবাহন ইত্যাদি।

পরিবেশের উপাদান

পরিবেশের উপাদান দুই প্রকার। যেমন জড় উপাদান ও জীব উপাদান।

যাদের জীবন আছে, যারা খাবার খায়, যাদের বৃদ্ধি আছে, জন্ম আছে, মৃত্যু আছে তাদের বলে জীব। গাছপালা, পশুপাখি, কীটপতঙ্গ, মানুষ ও অন্যান্য প্রাণী হলো জীব।

মাটি, পানি, বায়ু, পাহাড়, পর্বত, নদী, সাগর, আলো, উষ্ণতা, আর্দ্রতা হলো পরিবেশের জড় উপাদান। এই জড় উপাদান নিয়ে গড়া পরিবেশ হলো জড় পরিবেশ।

পরিবেশের গুরুত্ব

  1. জীবনযাপনের জন্য পরিবেশের গুরুত্ব অপরিসীম।
  2.  প্রকৃতি থেকে ওষুধ পাই যা আমাদের খুব উপকারে আসে।
  3. জলবায়ু নিয়ন্ত্রণে পরিবেশ বড় ভূমিকা পালন করে।
  4. স্বাস্থ্যকর জীবনযাপনের জন্য পরিবেশের গুরুত্ব তুলনাহীন।
  5. পরিবেশ আমাদের জীবন যাত্রার মানকে প্রভাবিত করে। এরফলে আমাদের জীবন যাত্রার মান সহজ সরল হয়।
  6. প্রকৃতি থেকে আমরা অনেক উপকারী জিনিস পাই যা আমাদের বেঁচে থাকতে সাহায্য করে।

পরিবেশ কাকে বলে

আমাদের চারপাশে গাছপালা, পশুপাখি, জীবজন্তু, মানুষ, ঘরবাড়ি, মাটি, পানি, বায়ু, সূর্যের আলো, পাহাড়-পর্বত, আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধব এই সবকিছু মিলেই আমাদের পরিবেশ।

উপাদান অনুযায়ী পরিবেশকে কয় ভাগে ভাগ করা হয়?

উপাদান অনুযায়ী পরিবেশকে ২ ভাগে ভাগ করা হয়। (১) প্রাকৃতিক পরিবেশ (২) মানুষের তৈরি পরিবেশ

You cannot copy this post.