স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন সাংবাদিক পীর হাবিবুর

 

পীর হাবিবুর রহমান। — সংগৃহীত ছবি।

দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিনের নির্বাহী সম্পাদক ও সিনিয়র সাংবাদিক পীর হাবিবুর রহমান শনিবার বিকেলে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

পত্রিকাটির প্রধান প্রতিবেদক মঞ্জুরুল ইসলাম জানান, ঢাকার ল্যাবএইড বিশেষায়িত হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকেল ৪টার দিকে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

 

এর আগে শুক্রবার সন্ধ্যায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি স্ট্রোকে আক্রান্ত হলে তাকে ল্যাবএইড হাসপাতালের আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়।

পীর হাবিব ২০১১ সাল থেকে বাংলাদেশ প্রতিদিনের সঙ্গে কাজ করছিলেন।

তিনি অনলাইন নিউজ পোর্টাল পূর্বপশ্চিমের সম্পাদক ছিলেন।

রাজনৈতিক বিশ্লেষক, কলামিস্ট এবং টক শো অতিথি হিসেবে তিনি সুপরিচিত ছিলেন।

হাবিবুর রহমানের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

তার মৃত্যুতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিন ও সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস খান এবং ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি নজরুল ইসলাম মিঠু ও সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম হাসিবও গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

পীর হাবিবুর ১৯৬৪ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি সুনামগঞ্জে জন্মগ্রহণ করেন।

তিনি ক্যান্সারে ভুগছিলেন এবং 2021 সালের অক্টোবরে ভারতের মুম্বাইয়ের একটি হাসপাতালে চিকিত্সা করা হয়েছিল, সংবাদপত্রটি তার ওয়েবসাইটে জানিয়েছে।

তিনি 22 জানুয়ারী কোভিড পজিটিভ পরীক্ষা করেছিলেন এবং ল্যাবেইড বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন এবং পরে নেতিবাচক পরীক্ষা করেছিলেন।

পিয়ার হাবিবুর কিডনি জটিলতায় পরে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে ভর্তি হন।

শুক্রবার তিনি স্ট্রোক করেন এবং আবার ল্যাবএইড হাসপাতালে স্থানান্তরিত হন।

তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে রেখে গেছেন।

এশার নামাজের পর উত্তরা ৪ নম্বর সেক্টরের পার্ক মসজিদে তার প্রথম নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

রোববার সকাল সাড়ে ১১টায় মরদেহ নিয়ে যাওয়া হবে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে।

জোহরের নামাজের পর জাতীয় প্রেসক্লাবে তার দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হবে এবং এরপর মরদেহ ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এবং পরে বাংলাদেশ প্রতিদিনের কার্যালয় প্রাঙ্গণে নিয়ে যাওয়া হবে।

পীর হাবিবুরকে সোমবার সুনামগঞ্জে নিজ গ্রামে দাফন করা হবে বলে তার সহকর্মীরা জানিয়েছেন।