ওলট কম্বল গাছের উপকারিতা

ওলট কম্বল গাছের উপকারিতা ওলট কম্বল গাছের ওষুধ একটি পরীক্ষিত ওষুধ। উলটকম্বল গাছের পাতা, ডাল, মূল, বাকল আমাদের জন্য খুবই উপাকারি। বিশেষ করে বিভিন্ন রোগের ওষুধ তৈরিতে এই উলটকম্বল গাছ ব্যবহৃত হয়।

উলটকম্বল গাছের বাকল ও ডাঁটা পানিতে ভিজিয়ে রাখলে আঠালো পদার্থ বের হয় যা কোষ্ঠ্যকাঠিন্য দূর করে। এছাড়াও পাতার ডাঁটা প্রস্রাবের জ্বালাপোড়া উপশম, আমাশয় রোগের জন্য উপকারী।

উলটকম্বল গাছের পাতা ও কাণ্ডের রস গনোরিয়া, ফোঁড়া ও স্ত্রী রোগে উপকারী। উলটকম্বল গাছের মূলের ছাল থেকে এক ধরনের আঠাজাতীয় রস বের হয়, যা গর্ভাশয়ের শক্তি বৃদ্ধি করে।

দীর্ঘদিন থেকে অনিয়মিত ঋতুস্রাব, জরায়ু সংক্রান্ত রোগ, বন্ধ্যত্ব, ব্যথাসহ বিভিন্ন রোগ নিরাময়ে কার্যকর এটি বলে জানান ভেষজ বিশেষজ্ঞগণ।

উলটকম্বল গাছ বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলংকায় আপনি পাবেন। উলটকম্বল গাছের ইংরেজি নাম ডেভিলস কটন।

গবাদিপশুর পাতলা পায়খানা, বিলম্ব প্রজনন এবং হাঁস-মুরগির বিভিন্ন চিকিৎসায় উলটকম্বলের ব্যবহার রয়েছে। এ থেকে তৈরি ওষুধের কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই।

উলটকম্বল গাছ সাধারনত ৮ থেকে ১০ ফুট লম্বা এবং ২-৩ মিটার উচ্চতাবিশিষ্ট হয়ে থাকে। এটি বেশি মোটা হয় না। সম্পূর্ণ বিস্তারিত জানতে,