জ্বালানি তেলের দাম 2022

২০২২ সালের মাঝামাঝি এসে জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি পেয়ে বিপাকে পড়েছে বাংলাদেশের সকল মানুষ। বিশ্ব বাজারে জ্বালানি তলের দাম কমেছে কিন্ত বাংলাদেশে জ্বালানি তেলের দাম আকাশ ছুয়া অবস্থাই আছে।

বাংলাদেশে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ার প্রধান কারন দেশে জ্বালানি তেল অনেক সংকটে আছে। জ্বালানি

তেল পর্যাপ্ত রিজার্ভে নেই। এখন কোনো উপাই না পেয়ে জ্বালানি তেল আমদানি করতে চাই বাংলাদেশ সরকার।

বাংলাদেশকে কম দামে তেল দেবে রাশিয়া মাত্র ৬৯ অথবা ৭৯ ডলারে। যেহেতু তেলের দম বিশ্ববাজারে কম সেই সুযোগটা হাত ছাড়া করাতে চাই না সরকার। এজন্য যত দ্রুত সম্ভব রাশিয়ার কাছ থেকে তেল নিতে চাই বাংলাদেশ।

এখন সমস্যা হচ্ছে, রাশিয়া তাদের নিজেদের ক্যারেন্সিতে তেল দিবে। তাদের নিজস্ব কারেন্সি রুবলের মাধ্যমে তেল দিবে। এখন যেহেতু বাংলাদেশে যথেষ্ট রুবেন রিজার্ভ নেই সেজন্য অনেক সমস্যাই আছে।

প্রধান মন্ত্রী রুবলের সাথে টাকার যাচায়ের নির্দেশনা দিয়েছে। ডঃ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, রাশিয় ৩০ শতাংশ কমে তেল বিক্রি করছে। ভারত এখন তেল রাশিয়া থেকে আনছে। সেজন্য আমরা চিন্তা করতে পারি।

রাশিয়ার কাছ থেকে তেল নিচ্ছে ভারত, চীন

এখন সকলের কাছে একটাই প্রশ্ন জ্বালানি তেলের দাম 2022 এর শেষের দিকে এসে কমাতে পারবে কি বাংলাদেস সরকার?

জ্বালানি তেলের দাম 2022 FAQ

জ্বালানি তেল কি কি?

জ্বালানি তেল হলো পেট্রোল, ডিজেল, কেরোসিন, অকটেন।

জ্বালানি তেল উৎপাদনে শীর্ষ দেশ কোনটি?

১৯৭৫ সাল থেকে তেল উৎপাদনের দিক দিয়ে শীর্ষ দেশ রাশিয়া ও সৌদি আরবের পরের অবস্থানে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দাম

৮৮ ডলার তবে দাম বাড়তে বা কমতে পারে।