ফিতরা কত টাকা ২০২৪

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের জাতীয় ফিতরা নির্ধারণ কমিটি নির্দেশে ২০২৪ সালে সর্বনিম্ন ফিতরা নির্ধারণ করা হয়েছে প্রতিজনে ১১৫ টাকা এবং সর্বোচ্চ ২,৬৪০ টাকা। যা গতবছর ২০২২ সালে ছিল, প্রতিজনে ৭৫ টাকা এবং সর্বোচ্চ ২,৩১০ টাকা।
১৪৪৪ হিজরি সনের সাদাকাতুল ফিতর-এর হার জনপ্রতি সর্বোচ্চ ২৬৪০ টাকা এবং সর্বনিম্ন ১১৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। গত (২ এপ্রিল, রবিবার) সকাল ১১ টায় ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মুকাররম সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত জাতীয় ফিতরা নির্ধারণ কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।
সভায় সভাপতিত্ব করেন জাতীয় ফিতরা নির্ধারণ কমিটির সভাপতি ও বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের খতিব হাফেজ মাওলানা মুফতি মোহাম্মদ রুহুল আমিন |

ফিতরা ২০২৪

সভায় সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় যে, ইসলামী শরীয়াহ মতে, আটা, যব, কিসমিস, খেজুর ও পনির ইত্যাদি পণ্যগুলোর যে কোন একটি দ্বারা ফিতরা প্রদান করা যায়।

 
ফিতরার নামওজন/পরিমাণ (দিতে হবে)বাজার মূল্য
গম বা আটা আদায় করলে১ কেজি ৬শ’ ৫০ গ্রাম১১৫ টাকা
যব দ্বারা আদায় করলে৩ কেজি ৩ শ’ গ্রাম৩৯৬ টাকা
খেজুর দ্বারা আদায় করলে৩ কেজি ৩ শ’ গ্রাম১,৯৮০ টাকা
পনির দ্বারা আদায় করলে৩ কেজি ৩ শ’ গ্রাম২,৬৪০ টাকা
কিসমিস দ্বারা আদায় করলে৩ কেজি ৩শ’ গ্রাম১,৬৫০ টাকা
বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ দেশের সকল বিভাগ থেকে সংগৃহীত আটা, যব, খেজুর, কিসমিস ও পনিরের বাজার মূল্যের ভিত্তিতে এই ফিতরা নির্ধারণ করা হয়েছে। মুসলমানগণ নিজ নিজ সামর্থ্য অনুযায়ী উপর্যুক্ত পণ্যগুলোর যে কোন একটি পণ্য বা এর বাজার মূল্য দ্বারা সাদাকাতুল ফিতর আদায় করতে পারবেন।
উল্লেখ্য, উপর্যুক্ত পণ্যসমূহের স্থানীয় খুচরা বাজার মূল্যের তারতম্য রয়েছে। তদনুযায়ী স্থানীয় মূল্যে পরিশোধ করলেও ফিতরা আদায় হবে।

ফিতরা কত টাকা ২০২৪

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের জাতীয় ফিতরা নির্ধারণ কমিটি নির্দেশে ২০২৪ সালে সর্বনিম্ন ফিতরা নির্ধারণ করা হয়েছে প্রতিজনে ১১৫ টাকা এবং সর্বোচ্চ ২,৬৪০ টাকা।

গম বা আটা দ্বারা ফিতরা আদায় করলে অর্ধ সা— বা ১ কেজি ৬শ’ ৫০ গ্রাম বা এর বাজার মূল্য ১১৫ (একশত পনের) টাকা প্রদান করতে হবে।
যব দ্বারা আদায় করলে এক সা’ বা ৩ কেজি ৩ শ’ গ্রাম বা এর বাজার মূল্য ৩৯৬ (তিনশ ছিয়ানব্বই) টাকা,
কিসমিস দ্বারা আদায় করলে এক সা— বা ৩ কেজি ৩শ’ গ্রাম বা এর বাজার মূল্য ১,৬৫০ (এক হাজার ছয়শত পঞ্চাশ) টাকা,
খেজুর দ্বারা আদায় করলে এক সা’ বা ৩ কেজি ৩ শ’ গ্রাম বা এর বাজার মূল্য ১,৯৮০ (এক হাজার নয়শ আশি) টাকা ও
পনির দ্বারা আদায় করলে এক সা’ বা ৩ কেজি ৩ শ’ গ্রাম বা এর বাজার মূল্য ২,৬৪০ (দুই হাজার ছয়শত চল্লিশ) টাকা ফিতরা প্রদান করতে হবে।

 

মুসলমানরা ফিতরার টাকা না দিলে এর পরিবর্তে সর্বনিম্ন ১১৫ থেকে সর্বোচ্চ ২,৬৪০ টাকার কোনো পন্য কিনে দিতে পারেন। যেমন- খেজুর, কিসমিস, গম/ আটা, পনির এবং যব [ইসলামিক সরিয়ত মতে]

এ বছর খাদ্যদ্রব্যের বাজার মূল্য বিবেচনায় নিয়ে ফিতরার সর্বনিম্ন ও সর্বোচ্চ হার নির্ধারণ করা হয়েছে।

ফিতরা গতবছর ২০২২ সালে ছিল
গতবছর ২০২২ সালে ছিল, প্রতিজনে ৭৫ টাকা এবং সর্বোচ্চ ২,৩১০ টাকা। ১ কেজি ৬৫০ গ্রাম বা এর বাজার মূল্য টাকা দিতে হবে, উন্নতমানের আটা বা গম ফিতরা হিসেবে দিলে। ৩ কেজি ৩০০ গ্রাম বা এর বাজার মূল্য টাকা যব দিলে, ৩ কেজি ৩০০ গ্রাম বা এর বাজার মূল্য কিসমিসের ক্ষেত্রে , ৩ কেজি ৩০০ গ্রাম বা এর বাজার মূল্য টাকা খেজুরের ক্ষেত্রে  এবং  ৩ কেজি ৩০০ গ্রাম বা এর বাজার মূল্য দিতে হবে পনির ফিতরা হিসেবে দিলে।

ফিতরা ২০২৪ pdf

প্রিয় মুসলমান দ্বীনদার ভাইরা সদকাতুল ফিতর pdf আপনি যদি ডাউনলোড করতে চান তাহলে আমরা ফিতরা ২০২৪ pdf download লিংক দিয়েছি। নিচে ফিতরা ২০২৪ pdf এর লিংক দেওয়া হলঃ

ফাইলের নামসদকাতুল ফিতর pdf
ফিতরা ২০২৪ pdf downloadলিংক এখানে ক্লিক করুন
ফিতরা ২০২৪
ফিতরা ২০২৪

ফিতরা ২০২৪

এবার ফিতরা কত টাকা ২০২৪?

সর্বনিম্ন ফিতরা নির্ধারণ করা হয়েছে প্রতিজনে ১১৫ টাকা এবং সর্বোচ্চ ২,৬৪০ টাকা।

ফিতরা কত টাকা ২০২৪ ইসলামিক ফাউন্ডেশন?

ইসলামিক ফাউন্ডেশন ফিতরা কত টাকা এর সকল বিস্তারিত দেওয়া হয়েছে পোষ্টের মধ্যে।

This content is protected! By banglanewsbdhub