হাই প্রেসার কমানোর ঘরোয়া এবং সহজ ৫টি উপায় জেনেনিন

হাই প্রেসার কমানোর সহজ ৫ উপায় – উচ্চ রক্তচাপকে বলা হয় হাইপারটেনশন বা হাই প্রেসার। এটি একটি মানব শরীরের সাধারণ স্বাস্থ্য সমস্যা, যা নানা কারনে হতে পারে। এটি তখনই ঘটে যখন রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা বেড়ে যাই এবং ধমনীতে অত্যধিক চাপ পড়ে । এর ফলে হৃদরোগ, হার্ট অ্যাটাক ও স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ে।

হৃদযন্ত্র যখন বেশি রক্ত সরবরাহ করে তখন ধমনী সরু হয়ে যাই এর ফলে ধমনীতে চাপ পড়ে। যাকে বলা হয় উচ্চ রক্তচাপ। তবে প্রাথমিকভাবে উচ্চ রক্তচাপের কোনো উপসর্গ পাওয়া যায় না।

যার ফলে আমরা প্রাথমিক পর্যায়ে এটি নির্ণয় করতে পারি না। তাই আমরা প্রাথমিক অবস্থায় এটি নিয়ে অবগত থাকি না। এজন্য উচ্চ রক্তচাপের চিকিৎসা করি না, এর ফলে আমাদের হার্ট অ্যাটাক ও স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ে যাই।

আজ আমরা জানব, উচ্চ রক্তচাপক বা হাইপারটেনশনকে চিকিৎসকের পরামর্শের পাশাপাশি ৫টি উপায়ে যেভাবে নিয়ন্ত্রণে আনতে পারি তার সহজ ব্যাখ্যা। আপনি এটিকে ঘরোয়া উপায়ও বলতে পারেন।

হাই প্রেসার কমানোর ৫টি উপায়

  1. প্রথমে আপনাকে রক্তচাপ নির্ণয় করতে হবে, এর পর থেকেই নিয়মিত চিকিৎসা গ্রহণ ও পরীক্ষা করা জরুরি।
  2. অতিরিক্ত লবণ যুক্ত খাবার বা বেশি লবন আছে এমন খাবার পরিহার করুন। কম লবণযুক্ত খাবার খাওয়ার চেষ্টা করুন।
  3. আপনার শরীরের ওজন নিয়ন্ত্রন করুন। এটি সুস্থ থাকার প্রথম পদক্ষেপ। ব্যায়াম করুন নিয়মিত। স্বাভাবিক রক্তচাপ বজায় রাখতে আপনার ওজন ও কোলেস্টেরলের মাত্রা বজায় রাখুন।
  4. নিজেকে শারীরিকভাবে সক্রিয় রাখুন। নিয়মিত ওয়ার্কআউট উচ্চ রক্তচাপের ঝুঁকি কমায় ও হৃদযন্ত্রকে সুস্থ রাখে। দৈনিক আপনার রুটিনে অন্তত আধা ঘণ্টা শরীরচর্চা রাখুন।
  5. প্রক্রিয়াজাত ও তৈলাক্ত খাবার এড়িয়ে চলুন। চর্বিযুক্ত খাবার, ধূমপান, শারীরিক কার্যকলাপের অভাব ও প্রক্রিয়াজাত খাবার উচ্চ রক্তচাপের ঝুঁকি বাড়াতে পারে।

আরো পড়ুনঃ

আরো টিপস-

  • আপনার খাদ্যতালিকায় আদা রাখুন। আদা একটি সুপারফুড। এটি পুষ্টিগুণে ভরপুর। এটি রক্ত সঞ্চালন উন্নত করে।
  • এছাড়াও এটি রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে ও পেশি শিথিল করে। আপনার চা, স্যুপ, তরকারিসহ বিভিন্ন পানীয়তে আদা যোগ করতে পারেন।