জিপিএফ হিসাব দেখার নিয়ম

জিপিএফ হিসাব দেখার নিয়ম জানতে পারবে এই পোস্টের মাধ্যমে। জিপিএফ হিসাব দেখতে হলে এই প্রবন্ধটি কে অবশ্যই আপনাকে ফলো করতে হবে এই পোষ্টের মাধ্যমে জিপিএফ এর সকল তথ্য জানতে পারবে।

জিপিএফ কি?

GPF যার পূর্ণরূপ হল সাধারণ ভবিষ্য তহবিল। GPF হল সরকারি কর্মচারী ভবিষ্য তহবিল প্রকল্প। এই ব্যবস্থায়, সরকারী কর্মকর্তারা তাদের বেতনের কিছু পরিমাণ একটি ভবিষ্য তহবিলে জমা করেন, যা তাদের কর্মজীবনে অবসর গ্রহণের পর এককভাবে প্রদান করা হয়।

সমস্ত সরকারি কর্মচারীদের জেলা-উপজেলা অ্যাকাউন্টিং অফিসে একটি ব্যক্তিগত জিপিএফ অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে হবে। মাসিক বেতনের কিছু অংশও উক্ত অ্যাকাউন্টে জমা দিতে হবে। যা স্বয়ংক্রিয়ভাবে কর্মচারীদের বেতন থেকে কেটে নেওয়া হয়।

বছরের শেষে, মূল ব্যালেন্স 13% লাভের সাথে উক্ত GPF অ্যাকাউন্টে জমা হয়। প্রতি বছর আপনাকে উপজেলা ট্রেজারি অ্যাকাউন্টিং অফিসে গিয়ে দেখতে হতো জিপিএফ অ্যাকাউন্টে বা জিপিএফে কত টাকা ব্যালেন্স আছে।

আপনি সহজেই আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের মাধ্যমে আপনার প্রভিডেন্ট ফান্ড ব্যালেন্স বা জিপিএফ ব্যালেন্স চেক করতে পারেন।

জিপিএফ ব্যালেন্স চেক করার জন্য যা যা প্রয়োজন

যেহেতু আপনি সহজেই অনলাইনে জিপিএফ ব্যালেন্স চেক করতে পারেন, তাই আপনার কিছু নথির প্রয়োজন হবে যা আপনাকে জিপিএফ ব্যালেন্স চেক করতে সাহায্য করবে। আর কোন ডকুমেন্ট ছাড়া আপনি জিপিএফ ব্যালেন্স চেক করতে পারবেন না।

  • NID/ Smart NID
  • পে ফিক্সেশনে ব্যবহারকৃত মোবাইল নাম্বার
  • একটি ডিভাইস ও ইন্টারনেট কানেকশন
  • নির্ধারিত ওয়েবসাইটে ভিজিট করতে হবে

জিপিএফ ব্যালেন্স চেক বা হিসাব দেখার নিয়ম

GPF ব্যালেন্স চেক করতে বা GPF অ্যাকাউন্ট দেখতে যেকোনো ব্রাউজার থেকে www.cafopfm.gov.bd লিঙ্কে যান। তারপর GPF তথ্যে ক্লিক করুন এবং NID নম্বর এবং মোবাইল নম্বর দিয়ে OTP যাচাইকরণ করুন। তথ্য সঠিক হলে আপনি পরবর্তী পৃষ্ঠায় আপনার জিপিএফ ব্যালেন্স দেখতে পাবেন

  1. Cafopfm.gov.bd ওয়েবসাইটে যান
  2. GPF অ্যাকাউন্ট দেখতে http://www.cafopfm.gov.bd এই লিঙ্কে যান। এখানে আপনি প্রয়োজনীয় তথ্য উল্লেখ করে সার্চ করলে জিপিএফ ব্যালেন্স দেখতে পাবেন
  3. GPF তথ্য লিঙ্কে ক্লিক করুন
  4. ওয়েবসাইট ভিজিট করার পর আপনি অনেক অপশন দেখতে পাবেন সেখান থেকে আপনাকে GPF Information লেখাটিতে ক্লিক করতে হবে।

জিপিএফ ব্যালেন্স চেক

  1. প্রয়োজনীয় তথ্য উল্লেখ করুন

    GPF Information এ ক্লিক করুন এবং নিচের ছবির মত একটি পেজ দেখতে পাবেন। এখানে আপনাকে আপনার NID নম্বর এবং পেমেন্ট ফিক্সেশনের জন্য ব্যবহৃত মোবাইল নম্বর প্রদান করতে হবে। তারপর SUBMIT বাটনে ক্লিক করুন।

    জিপিএফ ব্যালেন্স চেক করার নিয়ম

  2. OTP ভেরিফিকেশন সম্পন্ন করুন

    আপনার ব্যবহারকৃত মোবাইল নাম্বারে একটি এসএমএস যাবে । সেখানে একটি 4 ডিজিটের ওয়ান টাইম কোড ( OTP ) পাঠানো হবে। উক্ত 4 ডিজিটের কোড টি উল্লেখ করে আপনাকে আবার SUBMIT বাটনে ক্লিক করতে হবে।

    অনলাইনে জিপিএফ ব্যালেন্স চেক

     

আপনার তথ্য যদি সঠিক থাকে তাহলে পরবর্তী পেজে আপনার জিপিএফ ব্যালেন্স  বা জিপিএফ হিসাব দেখতে পাওয়া যাবে। উক্ত পেইজ এ আপনি যা যা দেখতে পাবেন

  • Financial year
  • Subscriber name
  • Account no:
  • NID
  • Volume number
  • and page number

এর সাথে আপনি নীচে আপনার জিপি ব্যালেন্সের আগের বছরের স্থিতি (ওপেনিং ব্যালেন্স) এবং ক্লোজিং ব্যালেন্স বর্তমান আর্থিক বছরের ব্যালেন্স এবং 13% লাভ সহ আগের বছরের স্থিতি দেখতে পাবেন।

আপনি যদি আপনার গণনা PDF আকারে ডাউনলোড করতে চান, তাহলে ডান পাশের কোণায় লেখা PRINT-এ ক্লিক করুন।

আপনি চাইলে, উপরের ডান পাশের

 

জিপিএফ ব্যালেন্স হিসাব বা ক্যালকুলেশন করার নিয়ম

আপনি SUBSCRIPTION কলামে আপনার বর্তমান অর্থবছরের জমা হওয়ার মোট টাকার অংক দেখতে পাবেন। উক্ত টাকাকে আপনার  প্রতিমাসে সে যে পরিমাণ টাকা কর্তন করা হয় সেই টাকা দিয়ে ভাগ করবেন।

ধরুন একজন ব্যক্তি তার মাসিক বেতন থেকে 1000 টাকা প্রভিডেন্ট ফান্ডে জমা রাখলে উক্ত SUBSCRIPTION ব্যালেন্সে যা থাকবে সেটাকে 1000 দিয়ে ভাগ করতে হবে ।

জিপিএফ ক্যালকুলেটর

আপনার আগের বছরের ব্যালেন্সের উপরে 13% যোগ করুন এবং আপনার বর্তমান বছরের মোট ব্যালেন্সে যোগ করুন। মোট সংখ্যা হবে আপনার ক্লোজিং ব্যালেন্স।

এছাড়াও আপনি সহজেই প্রভিডেন্ট ফান্ডের অবস্থা বা GPF অ্যাকাউন্টের আগের বছরের অবস্থা এবং GPF ক্যালকুলেটরের মাধ্যমে মাসিক কাটার পরিমাণ সহ বছরের শেষ অবস্থা জানতে পারবেন। এজন্য আপনাকে https://www.cafopfm.gov.bd/calculator.php এই লিঙ্কে যেতে হবে।

  • এখানে Opening Balance আপনার বছরের শুরুর স্থিতি উল্লেখ করতে হবে
  • Monthly Subscription এক বক্সে আপনার মাসিক কর্তনের পরিমাণ উল্লেখ করতে হবে
  • Advance Withdrawal বক্সে আপনি যদি অগ্রিম উত্তোলন করে থাকেন সেটাও পরিমাণ উল্লেখ করবেন যদি উত্তর না করে থাকেন তাহলে এই বক্স খালি রেখে দিবেন।
  • Rate of Interest এর ঘরে সাধারণভাবে ১৩% হার উল্লেখ থাকে। আপনার জিপিএফ হিসেবে যদি এর থেকে বেশি ইন্টারেস্ট দেওয়া হয় তাহলে সেটি উল্লেখ করুন।
  • সবশেষে Result বাটনে ক্লিক করলে আপনার Total Monthly Subscription , Interest on Monthly Subscription , Year End Balance দেখতে পারবেন।

অনলাইনে জিপিএফ হিসাব দেখার জন্য যেগুলো লাগবেঃ 

যদিও অনলাইনে জিপিএফ হিসাব দেখার নিয়ম সহজ একটি প্রক্রিয়া তারপরও আপনাকে কিছু প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র লাগবে। অনলাইনে জিপিএফ হিসাব দেখার জন্য যেগুলো লাগবে তা হচ্ছে-

  • একটি স্মার্ট ফোন / কম্পিউটার অথবা ট্যাব
  • ইন্টারনেট কানেকশন
  • NID / SMART ID নম্বর (পে ফিক্সেশন করার সময় যেটি ব্যবহার করেছেন)
  • মোবাইল নম্বর (পে ফিক্সেশনে যেটি ব্যবহার করেছেন)

অনলাইনে জিপিএফ হিসাব দেখার জন্য উপরিউক্ত জিনিসপত্র লাগবে। আপনারা সবকিছু জোগাড় করে নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন-

মোবাইল দিয়ে জিপিএফ ব্যালেন্স চেক – জিপিএফ হিসাব দেখার নিয়মঃ 

মোবাইল দিয়ে জিপিএফ ব্যালেন্স চেক এবং জিপিএফ হিসাব দেখতে হলে কিছু ধাপ অবশ্যই অনুসরণ করতে হবে। জিপিএফ ব্যালেন্স চেক করার নিয়ম খুবই সহজ। মোবাইলে জিপিএফ অ্যাকাউন্ট দেখার নিয়ম জেনে আপনি সহজেই জানতে পারবেন আপনার জিপিএফ অ্যাকাউন্টে কত টাকা জমা হয়েছে। এই কাজের জন্য আপনাকে নিম্নলিখিত পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করতে হবে-

প্রথমে আপনি www.cafopfm.gov.bd/ এই লিংকে ক্লিক করে প্রবেশ করবেন https://www.cafopfm.gov.bd/ তারপর নিচের স্ক্রিনশটের মতো জিপিএফ তথ্য নামে একটি পেজ দেখতে পাবেন। GPF ব্যালেন্স চেক করতে নিচের স্ক্রিনশটে দেখানো হিসাবে এখানে ক্লিক করুন বিকল্পে ক্লিক করুন-

এবার আপনারা নিচের স্ক্রিনশটএর মতো দুটি অপশন দেখতে পারবেন। এখানে অপশন দুইটি হচ্ছে-

  • NID/Smart ID – এখানে আপনাদেরকে আপনার এন আইডি কার্ডের নাম্বার দিতে হবে।
  • Phone No – এখানে আপনার মোবাইল নাম্বার দিতে হবে। অর্থাৎ আপনি পে ফিক্সেশন বা ইএফটি করার সময় যে নাম্বার দিয়েছিলেন এখানে সেই নাম্বার দিবেন।

এনআইডি কার্ডের নাম্বার এবং মোবাইল নাম্বার দেয়া হয়ে গেলে Submit অপশনে ক্লিক করবেন-

 

অতঃপর আপনার দেয়া মোবাইল নাম্বারে একটি ওটিপি কোড চলে যাবে। আপনারা সেই কোড নিচের স্ক্রিনশট দেখানো বক্সে দিয়ে Submit অপশনে ক্লিক করবেন-

 

এখন আপনি নীচের স্ক্রিনশট হিসাবে আপনার GPF অ্যাকাউন্ট ব্যালেন্স দেখতে পারেন। আপনি এখান থেকে জানতে পারবেন আপনার জিপিএফ অ্যাকাউন্টে কত টাকা আছে। নিচে আপনি ওপেনিং ব্যালেন্স, সাবস্ক্রিপশন, রিফান্ড, প্রফিট, উইথড্রয়াল এবং ক্লোজিং ব্যালেন্স দেখতে পাবেন-

এছাড়াও আপনি চাইলে, উপরের ডান দিকের Print বাটনে ক্লিক করে জিপিএফ স্টেটমেন্ট ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। জিপিএফ এর টাকা তোলার জন্য এই প্রিন্ট কপি ব্যবহার করা যাবে। এতে কোন প্রকার অফিসিয়াল স্বাক্ষরের প্রয়োজন হবেনা।

এই ছিলো জিপিএফ ব্যালেন্স চেক করার নিয়ম। উপরে জিপিএফ হিসাব দেখার নিয়ম রয়েছে। আপনারা উপরে দেখানো পদ্ধতি অনুযায়ী খুব সহজেই অনলাইনে ঘরে বসে জিপিএফ ব্যালেন্স চেক করতে পারবেন।

জিপিএফ হিসাব দেখার নিয়ম FAQ

জিপিএফ ব্যালেন্স চেক করার জন্য কি কি প্রয়োজন?

জিপিএফ ব্যালেন্স চেক করার জন্য যা যা প্রয়োজন NID/ Smart NID পে ফিক্সেশনে ব্যবহারকৃত মোবাইল নাম্বার একটি ডিভাইস ও ইন্টারনেট কানেকশন নির্ধারিত ওয়েবসাইটে ভিজিট করতে হবেম

জিপিএফ কি?

GPF যার পূর্ণরূপ হল সাধারণ ভবিষ্য তহবিল। GPF হল সরকারি কর্মচারী ভবিষ্য তহবিল প্রকল্প।

Leave a Comment

You cannot copy this post.